Zainul Abedin the great artist Paragraph

Zainul Abedin was born at a village in Kishoregonj in 1914. His father’s name was Jamr Uddin. He was a police officer. He had a great thirst for drawing. For this reason he got himself admitted into Calcutta Government Art College n 1933.

In 1938 he stood first class first from the college. In the same year he was awarded Gold Medal in al India Art Exhibition. He drew a lot of pictures on Famine of the Second World War in 1939 which earned world wide reputation for him.

In 1948 he founded the Dhaka Art Institution. He was appointed principal in 1949 of this institution. He retired from this institution in 1967 Zainul Abedin is considered the founding father of Bangladeshi art.

He was an artist of outstanding talent and earned international reputation. For his artistic and visionary qualities, he is referred to as Shilpacharya meaning great teacher of art’ in Bangladesh. He designed the pages of the Constitution of Bangladesh.

He founded the Folk Art Museum at Sonargoan, and also Zainul Abedin Shangrahasala, a gallery of his own works in Mymensing in 1975. He died in 1976.

zainul abedin, the great artist bangla

বাংলা অনুবাদ:

জয়নুল আবেদীন ১৯১৪ সালে কিশোরগঞ্জের একটি গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতার নাম জমর উদ্দিন। তিনি একজন পুলিশ অফিসার ছিলেন। ছবি আঁকার ভীষণ তৃষ্ণা ছিল তার। এই কারণে তিনি ১৯৩৩ সালে কলকাতা সরকারি আর্ট কলেজে ভর্তি হন।

১৯৩৮ সালে তিনি কলেজ থেকে প্রথম শ্রেণিতে প্রথম হন। একই বছর তিনি আল ইন্ডিয়া আর্ট প্রদর্শনীতে স্বর্ণপদক লাভ করেন। তিনি ১৯৩৯ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের দুর্ভিক্ষের উপর প্রচুর ছবি আঁকেন যা তার জন্য বিশ্বব্যাপী খ্যাতি অর্জন করেছিল।

See also  Environmental Pollition Paragraph for class 6, 7, 8, 9, SSC, HSC

১৯৪৮ সালে তিনি ঢাকা আর্ট ইনস্টিটিউশন প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি ১৯৪৯ সালে এই প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ নিযুক্ত হন। তিনি ১৯৬৭ সালে এই প্রতিষ্ঠান থেকে অবসর গ্রহণ করেন জয়নুল আবেদিনকে বাংলাদেশী শিল্পের প্রতিষ্ঠাতা হিসাবে বিবেচনা করা হয়।

তিনি অসামান্য প্রতিভার একজন শিল্পী ছিলেন এবং আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেছিলেন। তার শৈল্পিক এবং দূরদর্শী গুণাবলীর জন্য, তাকে বাংলাদেশে শিল্পাচার্য অর্থাৎ শিল্পের মহান শিক্ষক হিসেবে উল্লেখ করা হয়। তিনি বাংলাদেশের সংবিধানের পাতাগুলো ডিজাইন করেন।

তিনি সোনারগাঁওয়ে লোকশিল্প জাদুঘর প্রতিষ্ঠা করেন এবং ১৯৭৫ সালে ময়মনসিংহে তার নিজের শিল্পকর্মের একটি গ্যালারি জয়নুল আবেদিন সংগ্রাহশালাও প্রতিষ্ঠা করেন। তিনি ১৯৭৬ সালে মারা যান।

more post:

folk music and modern music paragraph

industry is the key to success paragraph

neighbouring country paragraph